মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৫২ অপরাহ্ন

চীন-পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একসঙ্গে লড়তে প্রস্তুত ভারতীয় বিমানবাহিনী

কুষ্টিয়া অনুসন্ধান ডেক্স:
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ৫ অক্টোবর, ২০২০
  • ২১ পাঠক পড়েছে

ভারতের বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার এয়ার চিফ মার্শাল রাকেশ কুমার সিং ভাদুরিয়া, ফাইল ছবি।

চীন ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একসঙ্গে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তত বলে জানিয়েছেন ভারতের বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল রাকেশ কুমার সিং ভাদুরিয়া। সোমবার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এমনি হুঙ্কার দিলেন ভারতের বিমানবাহিনী প্রধান।
ভাদুরিয়ার কাছে সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল চীন ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একসঙ্গে যুদ্ধ হলে ভারত কতটা প্রস্তুত? জবাবে এয়ার চিফ মার্শাল বলেন, ‘আমাদের প্রতিবেশীদের কেউ কেউ যে পরিস্থিতি তৈরি করেছে তার ফলে চারিদিকে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তবে আমরা একসঙ্গে দুদিকেই যে কোনো লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত রয়েছি। আমি অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে একথা বলতে চাই যে, দক্ষতার দিক থেকে আমরা সেরাদের মধ্যে অন্যতম। আমরাদের যোগ্যতা আমাদের পরামর্শদাতাদেরও আশ্চর্য করেছে। আসলে খুব দ্রুত গতিতে নিজেকে বদলে ফেলেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী।’লাদাখে চীনের মোকাবেলা করার জন্য কি ভারতের বিমানবাহিনী যথেষ্ট তৈরি রয়েছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘ভারতীয় বিমানবাহিনী খুব ভাল অবস্থায় রয়েছে। আপনারা নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন, যে কোনো সংকটের মোকাবেলার জন্য আমরা তৈরি রয়েছি। ভবিষ্যতে যে কোনো ধরনের যুদ্ধজয়ের ক্ষেত্রে ভারতীয় বিমানবাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকবে।’চীনের বিমানবাহিনী থেকে ভারতীয় বিমানবাহিনী কোনো অংশে পিছিয়ে নেই জানিয়ে ভাদুরিয়া বলেন, ‘চীনের থেকে আমরা কোনো অংশেই কম না। চীনের চোখ রাঙানিতে ভারত চুপ করে বসে থাকবে না। সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ এলাকাতে আমাদের সেনা মোতায়েন করা আছে। যদি তেমন কোনো পরিস্থিতি তৈরি হয় উত্তর ও পশ্চিম সীমান্ত এলাকায়, একসঙ্গে তা কড়া হাতে মোকাবেলা করা হবে।’
রাফালের অন্তর্ভুক্তিকরণ ভারতের বিমানবাহিনীকে আরো শক্তিশালী করে তুলেছে উল্লেখ করে এয়ার চিফ মার্শাল বলেন, ‘সম্প্রতি পাঁচটি রাফাল যুদ্ধবিমান হাতে পেয়েছে ভারত। এই টানাপড়েনের মাঝেই লাদাখের আকাশে সেগুলোকে মহড়া দিতেও দেখা গেছে। পূর্ব লাদাখের বিমানঘাঁটিতে মোতায়েন করা হয়েছে সুখোই ৩০এমকেআই, জাগুয়ার এবং মিরাজ ২০০০ যুদ্ধবিমান।’তবে চীনকে হুঁশিয়ারি দেওয়ার পাশাপাশি আলোচনার বার্তাও দিয়েছেন এয়ার চিফ মার্শাল। বলছেন, ‘লাদাখের পরিস্থিতি প্রমাণ করেছে, আমাদের সশস্ত্র বাহিনী সবসময় প্রস্তুত এবং সতর্ক। এটা একটা উদাহরণ মাত্র। প্রয়োজন হলে বিমানবাহিনীও তার দক্ষতা প্রমাণ করবে। আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে। সফল না হলে যে কোনো পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত রয়েছি আমরা।’
সূত্র : টাইমস নাউ নিউজ।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2019-2020 । কুষ্টিয়া অনুসন্ধান
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580